কাজী হায়াৎ ও খালেদা আক্তার কল্পনাকে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান

../news_img/58860 mmm.JPG

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৯ ফেব্রুয়ারি স্বনামধন্য চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, অভিনেতা ও লেখক কাজী হায়াৎ ও জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র অভিনেত্রী খালেদা আক্তার কল্পনাকে আর্থিক অনুদান প্রদান করেছেন।

দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসে ভুগছেন কাজী হায়াৎ। অন্যদিকে খালেদা আক্তার কল্পনা চোখের সমস্যা ও ডায়াবেটিসে ভুগছেন। তাদের চিকিৎসার জন্য গতকাল শুক্রবার গণভবনে অনুদানের চেক প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী।

এ প্রসঙ্গে কাজী হায়াৎ বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে ১০ লাখ টাকা দিয়েছেন হার্টের চিকিৎসা বাবদ। ২০০৪ সালে আমি আমার হার্টে চারটা রিং পরাই। এরপর রিং ফেল করার পরে ২০০৫ সালে ওপেন হার্ট সার্জারি করি। এখন সেটা আবার ব্লকড হয়ে গেছে। ডাক্তার ধারণা করেছেন এক থেকে একাধিক ব্লকড হয়েছে। এজন্য আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আর্থিক সাহায্য চেয়েছি। তিনি সাহায্য করেছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আসলেই মহানুভব। আমি এর আগেও দেখেছি তিনি শিল্পীদের ক্ষেত্রে দলমত চিন্তা করেন না। দলমত নির্বিশেষে সাহায্য করেছেন। তিনি যখন সাহায্য করেন তখন মনে হয় না উনি কোনো রাজনৈতিক দলের নেত্রী। সত্যিকারেই মনে হয় তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী, দেশের অভিভাবক।’ অভিনেত্রী খালেদা আক্তার কল্পনাকেও ১০ লাখ টাকার আর্থিক অনুদানের চেক প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী।

এ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবার গণভবনে কবি, সমাজকর্মী সরদার আবুল কালাম আজাদ ও সিলেটের মদন মোহন কলেজের ছাত্রলীগ কর্মী মো. নুরুল আমিনকে চেক প্রদান করেন।