ট্রেনে ছিলেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী উপবনের ১১ বগি লাইনচ্যুত, সিলেটের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ

../news_img/59139 mrini.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেসের ১১টি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। এর ফলে সিলেটের সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

দুর্ঘটনা কবলিত ট্রেনে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানও ছিলেন। তিনি সিলেট থেকে ঢাকা যাচ্ছিলেন। তবে দুর্ঘটনায় তিনিসহ ট্রেনটিতে থাকা সহস্রাধিক যাত্রীর কেউই আহত হননি।

বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে শ্রীমঙ্গলের সাঁতগাও স্টেশনের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের সিলেট বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী মুজিবুর রহমান জানান, ট্রেনটি রাতে সাঁতগাও স্টেশন অতিক্রমের পর পুলিং রড ভেঙে লাইনের পয়েন্ট অ্যান্ড ক্রসিং এর কয়েকটি ব্লকের মধ্যে পড়ে যায়। এতে ব্লক ভেঙে ট্রেনের ১১টি বগি লাইনচ্যুত হয়।

তিনি জানান, শুক্রবার সকাল ৬টায় কুলাউড়া ও আখাউড়া থেকে আসা দুটি রিলিফ ট্রেন উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

ট্রেনটি উদ্ধার করে যোগাযোগ স্বাভাবিক করতে বেশ সময় লাগবে বলে জানান এ প্রকৌশলী। তিনি বলেন, যেভাবে রেললাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তাতে বেশ কিছু সময় লাগবে। হয়তো বিকাল পর্যন্ত সময় লেগে যেতে পারে।

স্থানীয়রা জানান, রাত ১টার দিকে বিকট শব্দ করতে করতে ট্রেন লাইনচ্যুত হতে থাকে। হঠাৎ করে তীব্র ঝাঁকুনি দিয়ে বগি লাইনচ্যুত হয় এবং দুলতে থাকে। তবে ট্রেন স্বল্প সময়ের মধ্যেই থেমে যায় এবং বগিগুলো কাত হয়ে পড়ে। দুর্ঘটনায় রেললাইন দুমরে-মুছড়ে স্লিপারগুলো ভেঙে গেছে।

দুর্ঘটনার সময় যাত্রীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। তাদের চিৎকারে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয় জনগণ এগিয়ে এসে তাদের ট্রেন থেকে নামতে সহায়তা করেন।

এদিকে ট্রেন দুর্ঘটনার পর শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ অর্থ প্রতিমন্ত্রীকে একটি প্রাইভেটকারে ঢাকায় পৌঁছে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. আশেকুল হক।