ক্লাস নিতে গিয়ে শ্রেণিকক্ষে রাবি অধ্যাপকের মৃত্যু!

../news_img/59852 mrini.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: শ্রেণিকক্ষে লেকচার দেয়ার সময় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে রাবির ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ড. সুলতান আহমেদ (৬৫) ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি...রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, পুত্র, কন্যাসহ বহু গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

শিক্ষার্থীরা জানায়, সকাল ৯টার দিকে অধ্যাপক সুলতান আহমেদ প্রথম বর্ষের ক্লাসে প্রবেশ করেন। কিছুক্ষণ পর তিনি হঠাৎ অসুস্থতাবোধ করলে তারা তাকে প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে নিয়ে যান। পরে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় অ্যাম্বুলেন্সযোগে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে নেয়ার পর ১০টা ৩৫ মিনিটে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক আজিজুল হক বলেন, ‘হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি আমাদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। হাসপাতালে পৌঁছে প্রথমে তার ডায়াবেটিকস পরীক্ষা করা হয়। যেহেতু ওনার বুকে ব্যথা করছিল, তাই স্ট্রোক হয়েছে কিনা পরীক্ষা করা হচ্ছিল। সে সময় তার মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুতে বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

অধ্যাপক সুলতান আহমেদ রাবির অধীনস্থ বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালকের দায়িত্বপালন করছিলেন। শিক্ষকতা জীবনে তিনি বিভাগের সভাপতিসহ বিভিন্ন প্রশাসনিক পদে দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্বপালন করেন। তার লেখা বেশ কয়েকটি গ্রন্থ ও গবেষণা প্রবন্ধ দেশ-বিদেশের বিভিন্ন জার্নালে প্রকাশ হয়েছে।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচিত মুখ ও সিনিয়র অধ্যাপকের এমন মৃত্যুতে সহকর্মী, শিক্ষার্থীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। গভীর শোক জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, প্রো-ভিসিসহ প্রশাসনের শীর্ষ কর্তারা। তারা এক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

বাদ আসর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে বিশ্ববিদ্যালয় গোরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়।