হঠাৎ বুদ্ধদেবের বাসায় মমতা

../news_img/59998 mrini.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য গতকাল বৃহস্পতিবার মুখোমুখি বসেছেন। কথা বলেছেন একসঙ্গে। বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বাসভবনে দুজনের মধ্যে কথা হয়। অনেকটা বিনা নোটিশেই মমতা যান বুদ্ধদেবের বাসায়।

বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বাসভবনে মমতা যাবেন, খবরটা গোপনই ছিল। সংবাদমাধ্যমের কাছেও আগাম কোনো খবর ছিল না। তাই দক্ষিণ কলকাতার পাম অ্যাভিনিউতে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বাসভবনে মমতার যাওয়ার খবর পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গে সাংবাদিকেরা ছুটে যান সেখানে।

মমতা হঠাৎই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বাসভবনে যান। বুদ্ধদেবের স্ত্রী মীরা ভট্টাচার্য নিজেই বাড়ির দরজায় এসে স্বাগত জানান মুখ্যমন্ত্রীকে। তারপর দুজনে যান বুদ্ধদেবের ঘরে। মমতার সঙ্গে ছিলেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার।

পশ্চিমবঙ্গজুড়ে চলছে পঞ্চায়েত ভোটের দামামা। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার কাজও চলছে। শুরু হয়েছে ২ এপ্রিল। চলবে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত। নির্বাচন ১, ৩ ও ৫ মে। এই নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়াকে কেন্দ্র করে গোটা রাজ্যে চলছে ক্ষমতাসীন দলের আধিপত্য।

বিভিন্ন জায়গায় মনোনয়নপত্র জমা দিতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। মনোনয়নপত্র ছিঁড়ে ফেলা হচ্ছে। সংঘর্ষও হচ্ছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বীরভূমে দলীয় প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়ে সিপিএমের সাবেক সাংসদ রামচন্দ্র ডোমকে সরকারি দলের কর্মীরা মারধর করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নির্বাচনের আগে বিভিন্ন দলের মধ্যে চলা এসব বাগ্‌বিতণ্ডা ও সংঘর্ষের মধ্যে মমতা গেলেন বুদ্ধদেবের বাসায়। এতে রাজনীতিবিদদের মনে নানা প্রশ্ন জেগেছে। রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা এই দুজনের সাক্ষাৎ নিয়ে নানা হিসাব শুরু করেছেন।

মমতা গতকাল বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বাসভবন থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের জানান, এটা সৌজন্যসাক্ষাৎ। বুদ্ধদেব অসুস্থ, তাই তাঁকে দেখতে এসেছেন।

সাক্ষাতের সময় মমতাকে দেখে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য বলেন, ‘আপনি আমার বাড়িতে এসেছেন, এ জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।’ মমতাও বলেন, ‘আপনার অসুস্থতার খবর পেয়ে এসেছি। আপনার জন্য পিজি হাসপাতালে সব ব্যবস্থা করা আছে। আপনি চাইলে যেতে পারেন।’ এর উত্তরে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য বলেন, ‘আমি এখন অনেক ভালো আছি। বাড়িতেই থাকতে আমি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি।’

এরপরে দুজনের মধ্যে প্রায় ৪০ মিনিট আলোচনা হয়। তাঁরা খোশগল্প করেন। চা খান।

মমতাও বলেছেন, অনেক বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে। গল্প হয়েছে। আড্ডা হয়েছে। বই নিয়ে কথা হয়েছে। এখন কী পড়ছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, তা নিয়েও কথা হয়েছে। এর আগেও বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের অসুস্থতার খবর পেয়ে মমতা তাঁর এই পাম অ্যাভিনিউর বাসভবনে দেখা করতে গিয়েছিলেন।

মার্চ মাসের শুরুতে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের জন্মদিনে তাঁকে টুইটারে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন মমতা। শুধু তা-ই নয়, ওই দিন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বাসভবনে মমতা শুভেচ্ছাস্বরূপ পাঠিয়েছিলেন ফুল-মিষ্টি-কেক।