রাতে হলে ঢুকে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের বেছে বেছে নির্যাতন

../news_img/60101 mrini.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: দুদিন ধরে রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে হলে ঢুকে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের বেছে বেছে নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের এ নির্যাতনকে ‘নিষ্ঠুর ও বর্বর’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

বুধবার দুপুরে রাজধানীতে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ অভিযোগ করেন।

রিজভী বলেন, গতকাল রাতে (মঙ্গলবার) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুফিয়া কামাল হলে কোটা সংস্কার আন্দোলনে যোগদানকারী ছাত্রীদের ওপর হামলা চালিয়েছে হল ছাত্রলীগের নেত্রীরা। এতে কমপক্ষে পাঁচজন শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।

তিনি বলেন, গত কয়েক দিন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা ঘন ঘন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পদচারণা করছেন, তাতে আমরা কোনো প্রতিকার দেখছি না। বরং সাধারণ ছাত্রছাত্রী ও চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলনের ওপর রক্তাক্ত আক্রমণেরই ধারাবাহিক সহিংস ঘটনা দেশবাসী লক্ষ করছে।

বিএনপির এ নেতা বলেন, দেশে বিদ্যমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে মনে হয়, ছাত্রলীগের ছাড়পত্র ব্যতিরেকে সাধারণ শিক্ষার্থীরা শিক্ষালাভ, প্রতিবাদ ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে পারবে না। সরকারের মন্ত্রীদের লাগামহীন বক্তব্যের কারণে শিক্ষার্থীরা আরও বেশি ক্ষুব্ধ-বিক্ষুব্ধ হয়ে পড়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, গত কয়েক দিনের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্তৃপক্ষ সরকারের তল্পিবাহক ছাড়া কোনো আদর্শ শিক্ষকের ভূমিকা পালন করেনি। তারা সরকারের কাছে নিজেদের বিবেককে অঞ্জলি দিয়েছে।