আইপিএলে আসছে নতুন সিদ্ধান্ত

../news_img/60134 mrini.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :  এর আগে উৎসাহ দেখিয়ে কিংবা মৌখিক অনুরোধেও কাজ হয়নি। প্রাণপ্রনে সিএবি কর্তারা চেষ্টা করেছিলেন আইপিএলের প্লে-অফ ম্যাচ ইডেন গার্ডেন্সে আনার জন্য। তবে ইডেনকে হিসেবের বাইরেই রেখেছিলেন টুর্নামেন্টের আয়োজকরা।

তবে অযাচিতভাবেই হঠাৎ সুযোগ উপস্থিত ইডেনেই প্লে-অফ ম্যাচ আয়োজন করার। টুর্নামেন্টের প্রাথমিক সূ্চি অনুযায়ী, মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে ও পুণের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন মাঠে জোড়া প্লে-অফ এবং এলিমিনেটর খেলার কথা ছিল। তবে কাবেরী নদীই গঙ্গার তীরে প্লে-অফ খেলার মতো পরিস্থিতি তৈরি করেছে!

আইপিএলে আসছে নতুন সিদ্ধান্ত। চেন্নাইতে বেশ কিছুদিন ধরেই কাবেরী নদীর জলবণ্টন ইস্যুতে কট্টর তামিল সংগঠনগুলি আইপিএল বয়কটের ডাক দিয়ে আসছিল। স্থানীয় রাজনৈতিক নেতারাও সেই বিতর্কে ইন্ধন দিচ্ছিলেন। মাঠের সবুজ ঘাসে সাপ ছেড়ে দেওয়ার হুমকি থেকে গো ব্যাক স্লোগান ক্রমাগত চাপ বাড়ছিল।

সেই চাপ রুখতেই কলকাতা ম্যাচে কয়েক হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তা সত্ত্বেও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়ানো যায়নি। কলকাতা-চেন্নাই ম্যাচ চলাকালীনই জাদেজাকে লক্ষ্য করে জুতো ছোঁড়া হয়েছিল। তারপরে দু’জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তারও করা হয়।

পরিস্থিতি বেগতিক দেখে নিরাপত্তার সঙ্গে আপোস করতে রাজি হননি বোর্ডের কর্তারা। রাতারাতি পুণেতে চেন্নাইয়ের ম্যাচ সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতেই কপাল খুলেছে ইডেন গার্ডেন্সের।

সূত্রের খবর, পুণেতে চেন্নাইয়ের ম্যাচ সরে যাওয়ায় প্লে-অফের ম্যাচ এবার পুণে থেকে সরে যাওয়ার সম্ভবনা প্রবল। আর প্লে-অফ আয়োজন করার দৌড়ে কলকাতার সঙ্গেই লড়াইয়ে রয়েছে রাজকোট ও লখনউ। তবে বোর্ড সূত্রেই খবর, এই দৌড়ে জেতার ব্যাপারে ফেভারিট কলকাতাই।

লখনউ ও রাজকোটের থেকে কেন এগিয়ে ইডেন? এর আগে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় নিজেই জানিয়েছিলেন, কোনও কারণে পুণেতে আইপিএলের কোয়ালিফায়ার আয়োজনে সমস্যা দেখা দিলে, ইডেন প্রস্তুত থাকবে। সেই সমীকরণের সূত্রেই কোয়ালিফায়ার আয়োজনের তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছে সিএবির অন্দরমহলে।