শ্রীপুরে ঘুমন্ত স্ত্রীকে কুপিয়ে খুন, স্বামী গ্রেফতার

../news_img/60251 mrini.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: গাজীপুরের শ্রীপুরে বৃহস্পতিবার রাতে ঘুমন্ত এক নারী গার্মেন্টকর্মীকে কুপিয়ে খুন করেছে তার স্বামী। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ফজর উদ্দিনকে (৬৫) দা'সহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহতের নাম বেদেনা আক্তার (৫০)। তিনি ময়মনসিংহের নান্দাইল থানার দেইল লেংড়া গ্রামের মৃত আবদুল খালেকের মেয়ে।

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাহমুদুল হাসান ও নিহতের মেঝো মেয়ে সরমিন আক্তার জানান, গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার টেপিরবাড়ি এলাকার আতাবুদ্দিনের বাড়িতে তিন মেয়ে ও স্বামী ফজর উদ্দিনকে নিয়ে ভাড়া থাকেন পাঁচ সন্তানের জননী বেদেনা আক্তার। ফজর উদ্দিনের এটি দ্বিতীয় সংসার। আগের সংসারে তার ৭ ছেলেমেয়ে রয়েছে।

বেদেনা ও তার তিন মেয়ে স্থানীয় রিয়েলা টেক্সটাইল মিলে চাকরি করে। অভাব অনটনের সংসারে বেদেনার সঙ্গে প্রায়ই বেকার স্বামীর ঝগড়া-বিবাদ লেগে থাকত।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বেদেনা ঘরে ঘুমিয়েছিল। এ সময় পারিবারিক কলহের জেরে ঘুমন্ত বেদেনাকে দা দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে তার স্বামী। এতে বেদেনা ঘটনাস্থলেই মারা যান।

এ ঘটনা দেখতে পেয়ে বেদেনার ছোট মেয়ে রুবিনা ডাক-চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসে এবং দা'সহ ফজর উদ্দিনকে ঘরে আটক করে রাখে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার এবং ফজর আলীকে আটক করে শ্রীপুর মডেল থানায় নিয়ে যায়। আটক ফজর আলী দেউল ডাংরা গ্রামের মৃত সুবেদ আলী বেপারীর ছেলে। সে মানসিক রোগে ভুগছিল। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।