বাজারে বাড়ছে পেঁয়াজের ঝাঁজ

../news_img/60427 mrini.jpg

মৃদুভাষন ডেস্ক :: রমজান মাস আসতে না আসতেই বাজারে উত্তাপ ছড়াচ্ছে পেঁয়াজ। তিন সপ্তাহের ব্যবধানে ধাপে ধাপে খুচরা বাজারে দেশি পেঁয়াজের দাম কেজিতে প্রায় ১৫ টাকা বেড়েছে।

প্রতি কেজির দাম এখন মানভেদে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা। এর সঙ্গে ভারতীয় পেঁয়াজের দরও কেজিতে ৫-৭ টাকা বেড়েছে।

রাজধানীর কাজিপাড়া বাজারে বৃহস্পতিবার প্রতি কেজি ভালো মানের দেশি পেঁয়াজের দাম ছিল ৫০ টাকা। আকারে ছোট দেশি পেঁয়াজের দাম চাওয়া হয় ৪৫ টাকা। প্রতি কেজি ভারতীয় পেঁয়াজের দাম ৩৫ টাকা। দুই-তিন সপ্তাহ আগেও এক কেজি দেশি পেঁয়াজের সর্বোচ্চ দাম ৩৫ টাকা ছিল।

শুক্রবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে গিয়ে দেখা যায়, প্রতি পাল্লা (৫ কেজি) দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৯০ টাকা আর আমদানি করা পেঁয়াজ ১৪০ টাকা। সেই হিসাবে দেশি পেঁয়াজের কেজি ৩৮ টাকা আর আমদানি করা পেঁয়াজের কেজি পড়ছে ২৮ টাকা।

ঠিক এক সপ্তাহ আগে কারওয়ান বাজারে কেজিপ্রতি দেশি পেঁয়াজ ছিল ৩৪ টাকা এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ছিল ২৫ টাকা।

সরকারি সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) হিসাবে, বাজারে এখন দেশি পেঁয়াজের দাম ৪০-৫০ টাকা, যা এক মাস আগের তুলনায় ২৩ শতাংশ বেশি।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে আসা এক ক্রেতা বলেন, রমজান মাসে বেড়ে যাবে পণ্যের দাম। তাই রোজার আগেই প্রয়োজনীয় কেনাকাটা করে নিচ্ছি। কারণ কিছুদিন পরেই দেখা যাবে জিনিসপত্রের দাম অনেক বেশি হয়ে যাবে।

দাম বাড়ার বিষয়ে কারওয়ান বাজারের বিক্রেতারা জানান, রমজানে যেসব পণ্যের দাম বাড়ে, সেসব পণ্য এখনো স্বাভাবিক রয়েছে।

অন্য এক বিক্রেতা বলেন, ‘পেঁয়াজ, রসুন ও আদা—এই তিন পদের দাম বেড়েছে। তবে মুদি বাজারের অন্য কিছুর দাম বাড়েনি।