ভাবির সঙ্গে ঝগড়ায় প্রাণ গেল ননদের

../news_img/60674 mri nu.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ভাবির ছুরিকাঘাতে ননদ খুন হয়েছেন।

নিহতের নাম আফছানা পারভিন বুলু। আগামী সোমাবার থেকে শুরু হওয়া ডিগ্রি (পাস) দ্বিতীয় বর্ষ পরীক্ষায় অংশ নেয়ার কথা ছিল তার।

এ ঘটনায় তার ভাবি ইয়াসমীনও আহত হয়েছেন। তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে উপজেলার ২নং ধলই ইউনিয়নের কাটিরহাট বাজার এলাকার বাকের আলী গোমস্তার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ঘটনার দিন রাত ৯টার দিকে আফছানার সঙ্গে তার চাচাতো ভাই খোরশেদের স্ত্রী ইয়াসমীনের ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে তাদের হাতে থাকা ছুরির আঘাতে ননদ ও ভাবি দুজনেই গুরুতর আহত হয়।

পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নাজিরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথে আফছানা মারা যায়।

গুরুতর আহত অবস্থায় ইয়াসমীনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে তিনি হাসপাতালের ক্যাজুয়েলিটি বিভাগে চিকিৎসাধীন।

আফছানার আপন বড় বোনের জামাতা নাজিম উদ্দিন যুগান্তরকে জানান, আফছানা কাটিরহাট মহিলা কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের (বিএসএস) ছাত্রী ছিল। আগামী সোমাবার থেকে অনুষ্ঠিততব্য ডিগ্রি (পাস) দ্বিতীয় বর্ষ পরীক্ষায় অংশ নেয়ার কথা ছিল তার।

নাজিরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. ফুয়াদ মাহমুদ আবদুল হাকিম বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই আফছানা মারা যান এবং তার শরীরে ছয়টির মত ছুরিকাঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে।

ইয়াসমীনের শরীরেও দুই থেকে তিনটি স্থানে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানান এ চিকিৎসক।

হাটহাজারী মডেল থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর যুগান্তরকে জানান, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

তবে এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত (দুপুর আড়াইটা) থানায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো মামলা রুজু করা হয়নি।