৬ বছর যৌন হেনস্তার পর মোদির দ্বারস্থ বিমানবালা

../news_img/60855 mri nu.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: কর্মস্থলের উচ্চপদস্থ একজন কর্মকর্তার দ্বারা ৬ বছর ধরে যৌন হেনস্তার শিকার হয়ে আসছেন এক বিমানবালা। কোনো উপায় না পেয়ে কেন্দ্রীয় বেসামরিক বিমান পরিবহনমন্ত্রী সুরেশ প্রভুকে চিঠি দিয়েছেন ওই বিমানবালা। চিঠি লিখেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশে। এবিপি আনন্দের খবর।

গত ২৫ মে পাঠানো চিঠিতে অভিযোগকারী এয়ার ইন্ডিয়ার ওই বিমানবালা দাবি করেন, ঘটনাটি তদন্ত করে দেখতে একটি নিরপেক্ষ কমিটি তৈরি করা হোক। সঙ্গে সঙ্গে বিমানমন্ত্রী প্রভু এক টুইটবার্তায় জানিয়েছেন, এয়ার ইন্ডিয়ার সিএমডিকে অবিলম্বে অভিযোগের নিষ্পত্তি করতে বলেছেন তিনি। প্রয়োজন হলে আরেকটি কমিটি করার কথাও জানান তিনি। ওই কর্মকর্তাকে ‘শিকারি’ হিসেবে বর্ণনা করে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানবালা বলেন, নামী অভিনেত্রীরা যে হলিউড পরিচালক হার্ভে উইনস্টেইনকে যৌন নিগ্রহে অভিযুক্ত করেছেন, তার চেয়েও অধম না হোন, তার সমানই উনি।

চিঠিতে বিমানবালা লিখেছেন, ওই সিনিয়র এক্সিকিউটিভ আমাকে যৌন প্রস্তাব দিয়েছেন। দুর্ব্যবহার করেছেন আমার সঙ্গে। আমার সামনেই অন্য নারীদেরও গালিগালাজ করেছেন। অফিসের ভেতরে আমার ও অন্য মেয়েদের সঙ্গে যৌন ক্রিয়াকলাপ নিয়ে কথা বলেছেন। ওনার কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আমায় অপমান করেছেন। আমাকে পদোন্নতি, সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত করেছেন। কর্মস্থলে আমার জীবন দুর্বিষহ করেছেন এবং এখনও করে যাচ্ছেন।

তবে তিনি অভিযুক্ত কর্মকর্তার নাম প্রকাশ করেননি চিঠিতে। তিনি লিখেছেন, বিমানমন্ত্রীর সঙ্গে সামনাসামনি কথা বলার সুযোগ পেলে তিনি ওই কর্মকর্তার নাম প্রকাশ করবেন।

গত বছর সেপ্টেম্বরে এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষকে ওই বিমানবালা অভিযোগ জানান। চিঠি লেখেন সংস্থার সিএমডিকেও। কিন্তু কিছুই হয়নি বলে দাবি করেন তিনি।

এয়ার ইন্ডিয়ার নারী সেলও এই ইস্যুতে দ্বিধা করছে বলে অভিযোগ করেন ওই বিমানবালা। চিঠিতে তিনি বলেন, অভিযোগ মোকাবিলা কমিটি ওই উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে (সিনিয়র এক্সিকিউটিভ) তলব করতে তিন মাসের বেশি সময় নেয়। এমনকি তাকে পাল্টা জেরার কোনো সুযোগই আমাদের দেয়া হয়নি। আমরা স্বেচ্ছায় তাকে জেরা করতে আগ্রহী হয়েছিলাম, কিন্তু কমিটি আমাদের ডাকার কোনো প্রয়োজনই বোধ করেনি।