পোশাক শ্রমিকরা ১০ জুনের মধ্যে বেতন পাবেন : বাণিজ্যমন্ত্রী

../news_img/60880 mri nu.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: পোশাক শ্রমিকদের আগামী ১০ জুন বেতন ও ১৪ জুনের মধ্যে বোনাস প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই, বাংলাদেশ গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিজিএমইএ), বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিকেএমইএ) এবং বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএমইএ) নেতাদের সঙ্গে বৈঠককালে তিনি এ কথা জানান।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী বলেন, আমি সবার সঙ্গে কথা বলেছি। ব্যবসায়ীরা ঈদের আগে বেতন-বোনাসসহ অন্যান্য ভাতা সব পরিশোধ করবেন। শ্রমিকরা হাসিখুশিভাবেই এবার বাড়িতে যাবেন ঈদ করতে।

তিনি বলেন, পোশাক খাতের শ্রমিকদের সময়মতো বেতনভাতা দিতে হবে। ১০ তারিখের মধ্যে মে মাসের পূর্ণ বেতন এবং ১৪ তারিখের আগে বোনাস পরিশোধ করতে হবে।

এ ছাড়া মন্ত্রী আরও বলেন, ঈদের আগে কোনো শ্রমিককে ছাঁটাই করা চলবে না। শ্রমিক অসন্তোষ দেখা দেয় এমন কোনো কর্মকাণ্ড করা যাবে না। ব্যবসায়ীরা নগদ টাকা বহনের ক্ষেত্রে পুলিশি সহায়তা চাইলে পাবেন।

বৈঠকে এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিজিএমইএর সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানসহ অন্য ব্যবসায়ী নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, নির্ধারিত সময়েই শ্রমিকদের বেতনভাতা দেয়া হবে। কিছু ছোটখাটো প্রবলেম থাকবে, সেগুলো সমাধানের চেষ্টা করব। সবার মতো শ্রমিকরাও হাসিমুখে বাড়ি যাবেন।

শিল্প পুলিশ ও শ্রম মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বিজিএমইএর ১৫টি মনিটরিং কমিটি কাজ করছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই ১৪ জুন ছুটির আগে বেতন-বোনাস শান্তিপূর্ণভাবে দিয়ে দেব।

এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন শ্রমিকদের উদ্দেশে বলেন, আপনারা কোনো রকম উসকানি ও বিপথগামীদের ষড়যন্ত্রে পা দেবেন না। বেতনভাতা বকেয়া রেখে কেউ ঈদ করতে যায়নি, আগামীতেও যাবে না। শ্রমিকদের বেতনভাতা বকেয়া রেখে ঈদ করতে যাব না, এটা আমি এনশিউর করছি।