ঈদের আগেই বন্দরের নবীগঞ্জ খেয়াঘাটে চালু হচ্ছে ফেরি সার্ভিস

../news_img/61331 mri.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: বহু প্রতীক্ষার পর অবশেষে ঈদের আগে বন্দরের নবীগঞ্জ- হাজীগঞ্জ খেয়াঘাটের শীতলক্ষ্যা নদীতে চালু হচ্ছে কাঙ্খিত ফেরি সার্ভিস।

আগামী ১৪ জুন বৃহস্পতিবার ফেরি সার্ভিসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে এবং ঈদের পরে ৫নং খেয়াঘাট দিয়ে আরেকটি ফেরী সার্ভিস চালু হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। এলাকাবাসী ৬ মাস ধরে এই ফেরি সার্ভিসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের অপেক্ষায় ছিলেন।

বন্দরবাসীর দীর্ঘ দিনের দাবির প্রেক্ষিতে চলতি বছরের ৩১ জানুয়ারি সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী নবীগঞ্জ-খেয়াঘাটে ১টি ও বিআইডব্লিউটিএ ৫নং খেয়াঘাট এবং বন্দর সেন্ট্রাল খেয়াঘাটে ১টি ফেরি স্থাপনের বিষয়ে মন্ত্রণালয়কে পত্র দেন।

এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ২২ এপ্রিল সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার দুটি ফেরিঘাট স্থাপনে প্রশাসনিক অনুমোদন দেন। অনুমোদনের পর ঘাট দুটিতে অবকাঠামো নির্মাণে গতি বৃদ্ধি পায়। সম্প্রসারণ করা হয় রাস্তা। নবীগঞ্জ খেয়াঘাটে যানবাহন ওঠানামায় নির্মাণ করা হয় অ্যাপ্রোচ রোড।

এলাকাবাসী জানান, হাজীগঞ্জ-নবীগঞ্জ খেয়াঘাট দিয়ে ফেরি সার্ভিস চালু হলে জেলা সদরের সঙ্গে সোনারগাঁও ও আড়াইহাজার উপজেলার যোগাযোগ ব্যবস্থার অভুতপূর্ব উন্নতি সাধিত হবে।

৫নং ঘাট দিয়ে ফেরি সার্ভিস চালু হলে প্রতিদিন বন্দর থেকে নারায়ণগঞ্জে যাতায়াতকারী লাখ লাখ মানুষ উপকৃত হবে। নগরীরর সঙ্গে বন্দরের ব্যবসায়িক যোগাযোগ আরও সহজ হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২৩ নভেম্বর বন্দরে এক জনসভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের দুটি ঘাটে ১৫ দিনের মধ্যে ফেরি সার্ভিস চালুর ঘোষণা দেন। ঘোষণার ৬ মাসের মাথায় নবীগঞ্জ ঘাটে শুরু হচ্ছে ফেরি চলাচল।