1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:০৭ পূর্বাহ্ন

গণপিটুনিতে গরু চোর আহত, গ্রামবাসীর নামে মায়ের মামলা!

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাব্বির জোয়ারদার

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার আমতৈল গ্রামে গরু চুরি করতে গিয়ে এলাকাবাসীর হাতে ধরা পড়েছে একই গ্রামের সাব্বির জোয়ারদার নামে এক যুবক।

গ্রামবাসীর হাতে উত্তম-মধ্যম খাওয়ার পর বর্তমানে সে পুলিশি প্রহরায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।

এদিকে অভিযুক্ত গরু চোর সাব্বিরের মা রুপালী খাতুন ছেলেকে মারধর করার অভিযোগে ৯ জনকে আসামি করে মাগুরার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেছেন। এ ঘটনা নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) লিটন সরকার জানান, ২৭ নভেম্বর রাত ১১ টার দিকে শ্রীপুর উপজেলার আমতৈল গ্রামের দরিদ্র কৃষক আমিনুল শেখের গোয়াল থেকে গরু চুরি করতে গেলে গ্রামবাসী চোরাই গরুসহ একই গ্রামের উত্তর পাড়ার আবুল কালাম জোয়ারদারের ছেলে সাব্বিরকে আটক করে। এ সময় এলাকাবাসী গণধোলায় দিলে সে চুরির সহযোগী হিসেবে নাইমসহ আরও কয়েকজনের নাম স্বীকার করে।

পরে গ্রামবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। কিন্তু গ্রামবাসীর গণধোলাইয়ের কারণে গুরুত্বর আহত হওয়ায় তাকে পুলিশি প্রহরায় মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে ওই ঘটনার পরদিন কৃষক আমিনুল গরু চুরির সঙ্গে জড়িত থাকায় সাব্বির ও নাইমকে আসামি করে শ্রীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যে মামলাটিতে সাক্ষী হিসেবে রয়েছে ওই গ্রামের ভুক্তভোগী গরু চুরির শিকার ৬ গৃহস্থ।

এদিকে গরু চুরির ঘটনার এক সপ্তাহ পর ৩ ডিসেম্বর এলাকায় গরু চোর হিসেবে আটক সাব্বিরের মা রুপালী খাতুন ছেলের ওপর গণধোলাইয়ে অংশগ্রহণকারী ৩ জনসহ পার্শ্ববর্তী ৬ গ্রামের ৯ জনের নামে সন্ত্রাসী কায়দায় ছেলেকে মারধরের মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার আসামি আমতৈল গ্রামের মিরাজ মোল্যা বলেন, শ্রীপুরের আমতৈল এবং কাজলি এলাকায় গত কয়েকদিনে অন্তত ১০টি মূল্যবান গরু চুরি হয়ে গেছে। এতে এলাকার সাধারণ খেটে খাওয়া প্রান্তিক মানুষেরা বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় এসব চুরি সংঘটিত হয়। আর চুরিকৃত সম্পদের ভাগ বাটোয়ারা তাদের মধ্যে হয়ে থাকে। যে কারণে এলাকার প্রভাবশালী ওই মহলের ইন্ধনে জনগণের হাতে আটক গরু চোরের মা আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে।

এ বিষয়ে পুলিশ প্রহরায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাব্বিরের মা রুপালী খাতুন বলেন, আমি বেশি লেখাপড়া জানি না। তবে স্থানীয় মাতবরদের সঙ্গে পরামর্শ করে মামলাটি করেছি। তবে যারা আমার ছেলেকে মারধর করেছে তাদের নামেই মামলা করা হয়েছে।

শ্রীপুর থানার ওসি মাহবুবুর রহমান বলেন, গরু চুরি এবং মারপিটের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা হয়েছে। তদন্তে প্রকৃত সত্য বেরিয়ে আসবে। তবে এলাকাবাসী মারধর করে সাব্বিরের পা ভেঙ্গে দিয়েছে এটি ঠিক হয়নি।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com