1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ১১:০৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
তারা জন্ম নিয়েছিলেন একসঙ্গে, মৃত্যু হলো কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, ৩৩ বাংলাদেশি উদ্ধার নেত্রকোনায় বজ্রপাতে প্রাণ গেল সাতজনের সাংবাদিক রোজিনাকে হেনস্তার ঘটনা তদন্তে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কমিটি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩ বন্ধুকে পাশাপাশি দাফন ভুল বিচারে ৩১ বছর জেলে দুই ভাই, ক্ষতিপূরণ সাড়ে ৭ কোটি ডলার! ‘ডকুমেন্টস সাংবাদিক রোজিনা নয়, সরকারি কর্মকর্তা উপস্থাপন করেছেন’ ফিলিস্তিন সংকট নিরসনে যুক্তরাষ্ট্রের শক্ত ভূমিকা চায় বাংলাদেশ জামিন পেলেন ফিরহাদ হাকিমসহ পশ্চিমবঙ্গের সেই ৪ নেতা ফিলিস্তিন ইস্যুতে নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধী অবস্থান চীনের

‘ব্রিটেনে হিসাবের চেয়েও ১৫ গুণ বেশি মানুষ মারা গেছে’

ছবি: বিবিসি

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: করোনাভাইরাস সংক্রমণে যুক্তরাজ্যে সরকারি হিসাবের চেয়েও ১৫ শতাংশ বেশি মানুষ মারা গেছে।

সরকার যে পরিসংখ্যান দিয়েছে, তাতে কেবল হাসপাতালগুলোতে মৃত্যুর সংখ্যা এসেছে। কিন্তু নার্সিং হোমগুলোতে মৃতের সংখ্যা এ পরিসংখ্যানে যুক্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

আলজাজিরা বলছে, ব্রিটেনে সরকারি হিসাবে মৃত্যুর সংখ্যায় বিশ্বে পঞ্চম স্থানে। এর আগে দেশটির সরকারি একজন জ্যেষ্ঠ বৈজ্ঞানিক উপদেষ্টা বলেছিলেন, ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার দিক থেকে ব্রিটেন ইউরোপের সবচেয়ে ঝুঁকিপর্ণ দেশ।

ব্রিটেনে মঙ্গলবার ঘোষণা দিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটির হাসপাতালগুলোতে ৭৭৮ জন মারা গেছে। মোট মৃতের সংখ্যা ১২ হাজার ১০৭ জন।

এদিন অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিস্টিকস (ওএনএস) জানিয়েছে, গত ৩ এপ্রিলের মধ্যে ব্রিটেনের নার্সিং হোমে ৫ হাজার ৯৭৯ জন করোনায় মারা গেছেন। তাদের মধ্যে অনেকের ভাইরাজনিত শ্বাসকষ্ট জটিলতায় মারা গেছেন বলে ডেথ সার্টিফিকেটে উল্লেখ রয়েছে।

এদের সঠিক তথ্য যোগ করলে স্বাস্থ্যসেবা থেকে প্রকাশিত সংখ্যার চেয়ে শতকরা ১৫ ভাগ বেশি হবে।

হার্ভার্ডের টিএইচ চ্যান স্কুলের পাবলিক হেলথ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বিল হেনেজ বলেন, ‘অনেক মৃত্যু হিসাবের বাইরে থেকে যাচ্ছে। নার্সিং হোমগুলোর মৃত্যু যোগ হচ্ছে না

এদিকে যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্য সেবাদানকারী (এনএইচএস) স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে যারা করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন তাদের মধ্যে এক তৃতীয়াংশ আক্রান্ত বলে দেশটির সরকার জানিয়েছে।

সোমবার প্রকাশিত ওই তথ্যে দেখা যায়, করোনার লক্ষণ থাকা প্রত্যক্ষ সেবাদানকারী স্বাস্থ্যকর্মী ও তাদের সংস্পর্শে থাকা পরিবারের লোকজনকে পরীক্ষা করা হয়েছে।এমন ব্যক্তিদের সংখ্যা ১৬ হাজার।

এর মধ্যে ৫৭৩৩ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ এসেছে। শতকরা হিসাব করলে দাঁড়ায় ৩৪ শতাংশ।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com