1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৫:২৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ঢাকায় সৈয়দ মুক্তাদিরের প্রথম জানাজা, হেলিকপ্টারে লাশ মৌলভীবাজারের পথে রুশ হামলায় তুর্কি সমর্থিত ৭৮ বিদ্রোহী নিহত দোহা বিমানবন্দরের বাথরুমে নবজাতক, অতঃপর… হাজী সেলিমের বা‌ড়ি থে‌কে অস্ত্র, মদ-বিয়ার ও ওয়া‌কিট‌কি উদ্ধার সৈয়দ আব্দুল মোক্তাদির এর মৃত্যুতে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের শোক নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্টকে মারধর, সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের গাড়িচালক গ্রেফতার সরকারি অর্থ আত্মসাৎ, টোকন ঠাকুর গ্রেফতার চট্টগ্রামে ফিরেছে বৈরুত বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত যুদ্ধজাহাজ বিজয় মাদক কিনতে গিয়ে গ্রেপ্তার অভিনেত্রী প্রীতিকা সৈয়দ আব্দুল মোক্তাদিরের সুস্থতার জন্য দোয়া চেয়েছে জালালাবাদ এসোসিয়েশন

যৌন হয়রানির দায়ে বরখাস্ত শিক্ষকের নামে বৈশাখী ভাতা!

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে বরখাস্ত করা স্কুল শিক্ষকের নামে বৈশাখী ভাতা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার বুড়িরচর শহীদ আলী আহম্মেদ মেমোরিয়াল উচ্চবিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম মনির উদ্দিন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, স্কুলটির দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনায় অভিযুক্ত হন শিক্ষক মনির উদ্দিন। ওই ঘটনায় গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি তাকে বরখাস্ত করে। তার পাঁচ মাস পর ওই শিক্ষকের ব্যাংক হিসাবে (হিসাব নম্বর ৩৪০৩২৮৯২, জনতা ব্যাংক) পয়লা বৈশাখের সরকারি ভাতা পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি জানাজানি হলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও এলাকায় সমালোচনার ঝড় ওঠে।

প্রসঙ্গত, শিক্ষক মনির উদ্দিনের বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ আছে। এর মধ্যে নির্যাতনের শিকার দশম শ্রেণির এক ছাত্রী ‘আত্মহত্যা করা ছাড়া উপায় নাই’ উল্লেখ করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়ে প্রতিকার দাবি করে।

ছাত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে ইউএনও মো. নূর-এ-আলম মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন। তদন্তের পর মনির উদ্দিনকে বরখাস্ত করা হয়।

অভিযোগ আছে, বরখাস্তকৃত শিক্ষক মনির উদ্দিনকে পুনরায় স্কুলে ফিরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে একটি মহল। এ ঘটনায় স্কুলের শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। তারা বলেন, ওই শিক্ষককে ফিরিয়ে আনা হলে শিক্ষা কার্যক্রম ও লেখাপড়া বিঘ্নিত হবে। তাছাড়া ছাত্রীদের মধ্যে দেখা দেবে আতঙ্ক। নষ্ট হবে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ।

পয়লা বৈশাখের ভাতা পাওয়ার বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. ইউছুফ ঢাকা টাইমসকে বলেন, ‘আমাদের কেরানি ছিল না। নতুন কেরানি এসেছেন। তিনি বুঝতে পারেননি। তাই মনির উদ্দিনের নাম ভাতার তালিকায় চলে গিয়েছিল। পরে আমরা সেটি ব্যাংকের মাধ্যমে বন্ধ করেছি।’ তিনি বলেন, ‘এপ্রিল মাসের বেতনও তার ব্যাংক হিসাবে গিয়েছিল। সেটিও ব্যাংকের মাধ্যমে বন্ধ করা হয়েছে।’

জানতে চাইলে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আমির হোসেন বলেন, ‘এই বিষয়টি পুরোপুরি স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির এখতিয়ারে। বরখাস্ত হওয়া শিক্ষক যেন বেতন-ভাতার সুবিধা না পান সে ব্যবস্থা ম্যানেজিং কমিটি নেবে।’


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com