1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:১৭ অপরাহ্ন

শ্রমিক ছাটাইয়ের প্রতিবাদে গণসঙ্গীত গাইলেন সিলেটের আংশুমান দত্ত অঞ্জন

ইমদাদুল হোসেন খান :

“ঘাবড়ে গেলে চলবে কেনো
আঘাত হানো আঘাত
সেই আঘাতে জীবন তোমার
হবে আলোকপাত।।

একবার জ্বলে উঠলে আগুন
আলোর মেলায় ফুটবে ফাগুণ
তীব্র বেগে ছুটবে তুমি
সমান দিবস রাত।।

বিবেক যখন আলোক পাবে
দেখবে ত্রি-ভুবন
তখন হবে দিগ্বিজয়ী
আলোর মহানজ

সেই আলোকের একটি কণা
জগৎ জুড়ে ফলবে সোনা
বিশ্ববাসীর আনাগোনা
খুলবে যে বরাত।।”

প্রখ্যাত গীতিকার, সুরকার ও গণসঙ্গীতশিল্পী শরীফ শাহ দেওয়ান আল মেহেদীর লেখা ও সুর করা এই গণসঙ্গীতটি করোনা পরিস্থিতিকে পুঁজি করে বেআইনীভাবে গার্মেন্টস্ শ্রমিকদের ছাটাইয়ের চক্রান্তের প্রতিবাদে গাইলেন বাংলাদেশ ও ভারতের জনপ্রিয় গণসঙ্গীতশিল্পী সিলেটের আংশুমান দত্ত অঞ্জন। গানটি “শরীফ শাহ আল মেহেদীর নির্বাচিত গণসঙ্গীত” বই থেকে নেয়া।

গানটির রচয়িতা ও সুরকার শরীফ দেওয়ান আল মেহেদীর সংক্ষিপ্ত জীবনী ঃ-
স্টোকের কারণে বর্তমানে অনেকটা নিভৃতচারী ৭৫ বছর বয়সী একসময়ের মঞ্চ, টেলিভিশন ও রেডিও কাঁপানো গণসঙ্গীত শিল্পী শরীফ দেওয়ান আল মেহেদীর জন্ম ১৯৪৪ সালের ৩ নভেম্বর মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলার অজপাড়াগাঁ কোটভাগের বগুড়াপাড়ায়। তাঁর পিতা মরহুম রহিম বক্স ও মাতা মরহুমা কুটিরুন্নেছা বিবি। শৈশব-কৈশোর কেটেছে গ্রামে বাবা-মায়ের সাথে। সাত সন্তানের জনক তিনি। শরীফ শাহ দেওয়ান আল মেহেদীর সন্তানেরা সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে বেড়ে উঠলেও তাঁর সময়ে পথচলা ছিল বন্ধুর। এলাকাগত মনুষ্যগড়া ফতোয়া ও গোঁড়ামি ছাপিয়ে অনেকটা যুদ্ধংদেহীভাবে সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে পদচারণা তাঁর। নানা প্রতিকূলতার পর যৌবনে পিতার আনুকূল্য লাভ করেন। এ অবস্থায় ১৯৬৫ সালে প্রকাশিত হয় তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ “ঝর ঝর ঝরণা”। দেশ ও বিদেশ থেকে সম্মাননা প্রাপ্ত হয়েছেন এই সঙ্গীত গুণী। বাংলাদেশ বেতার, টেলিভিশন ও মঞ্চ বিজয়ী বিশিষ্ট কণ্ঠশিল্পী তিনি। বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর তৃণমূল থেকে কেন্দ্রীয় সংসদ পর্যন্ত তিনি নিরলস, একনিষ্ঠ ও নিবেদিতপ্রাণ। বিদ্রোহী কবির চেতনায় প্রতিষ্ঠিত ” অগ্নিবীণা কেন্দ্রীয় সংসদ” যশোরের উপদেষ্টা হিসেবে তিনি বৈপ্লবিক শুভ চিন্তার অনেককে আলোর পথ দেখিয়েছেন। বরেণ্য চারণ কবি, গণশিল্পী, গীতিকার, সুরকার, মহামতি ফকির লালন শাহ ও হ্যানিম্যান আবিষ্কৃত হোমিওপ্যাথিক গবেষক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা তিনি। এপার বাংলা ও ওপার বাংলার বিভিন্ন পত্রপত্রিকা, লিটল ম্যাগাজিন ও বিভিন্ন সংকলনে তাঁর লেখা প্রকাশিত হয়েছে। তাঁর গণমুখী লেখালেখিতে উঠে এসেছে জুলুম ও অত্যাচার, অপশাসন, শোষণ-নির্যাতন ও নীপিড়নের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ, ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ৬৯ এর গণ অভ্যুত্থান, ৭১ এর ৭ মার্চের বজ্রভাষণ, ২৬ মার্চের স্বাধীনতা ঘোষণা ও ১৬ ডিসেম্বরের মহান বিজয়। এই গুণীজন বিভিন্ন সময় তাঁর সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক চর্চায় দেশ-বিদেশের খ্যাতনামা ও শ্রেষ্ট গুণীজনদের সহচর্য লাভ করেছেন, পেয়েছেন পরামর্শ, দিকনির্দেশনা ও উৎসাহ। এসব গুণীদের মধ্যে রয়েছেন মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম, বিশ্ববরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতান ওরফে লাল মিয়া, পল্লীকবি জসীম উদ্দীন, খ্যাতিমান গীতিকার বিজয় সরকার, জার্মান ফোকলোর সোসাইটির আচার্য ম্যালড্রিন, দেশবরেণ্য সাহিত্যিক আহমদ শরীফ, ড. আশরাফ সিদ্দিকী, ড. আনোয়ারুল করিম, ড. লুৎফুর রহমান, কমরেড অমল সেন, কমরেড মনি সিংহ, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আব্দুল আহাদ চৌধুরী, ভারতীয় সঙ্গীতশিল্পী প্রয়াত ড. ভুপেন হাজারিকা, কল্যাণ সেন রবার্ট, হৈমন্তী শুক্লা, পরীক্ষিত বালা, শুভেন্দু মাইতী, পাকিস্তানী ওস্তাদ গোলাম ইয়াসিন খান, মাগুরার কৃতিসন্তান প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট ড. বীরেন শিকদার, প্রয়াত সাবেক মন্ত্রী সোহরাব হোসেন, প্রয়াত সাবেক এমপি আসাদুজ্জামান, সঙ্গীতজ্ঞ ড. সানজিদা খাতুন, বেতারের সাবেক আরডি আহমদুজ্জামান, বরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক কামাল লোহানী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, গণসঙ্গীতশিল্পী ফকির আলমগীর, প্রয়াত সঙ্গীতশিল্পী সুবীর নন্দী, সঙ্গীত বিষয়ক পত্রিকা মাসিক ‘সরগম’ এর সম্পাদক কাজী রওনক হাসান, অধ্যাপক অসীত বরণ ঘোষ, অধ্যাপক কাজী সাইফুজ্জামান প্রমূখ।

শরীফ দেওয়ান আল মেহেদীর প্রাপ্ত উল্লেখযোগ্য সম্মাননাঃ-
১. উদীচী সম্মাননা
২. অগ্নিবীণার নজরুল পদক
৩. লালন একাডেমী সম্মাননা
৪. সরগম পত্রিকা সম্মাননা
৫. মাগুরা জেলা প্রশাসন কর্তৃক সংবর্ধনা
৬. শালিখা উপজেলা পরিষদ কর্তৃক সংবর্ধনা
৭. বিকশিত মাগুরা কর্মসূচীতে সংবর্ধনা
৮. এমএম কলেজ নব উত্তোরণ সাহিত্য পরিষদ পুরস্কার
৯. তানসেন পুরস্কার
১০. ওপার বাংলার কলকাতা কয়ার সম্মাননা
১১. বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদ পুরস্কার
১২. আমিয়ান সার্বজনীন পাঠাগার পুরস্কার
১৩. অগ্নিবীণা নড়াইল শাখা সম্মাননা

** ইমদাদুল হোসেন খান, উদীচী হবিগঞ্জ জেলা সংসদের সহ-সভাপতি ও বানিয়াচং প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com