1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ১০:১০ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, ৩৩ বাংলাদেশি উদ্ধার নেত্রকোনায় বজ্রপাতে প্রাণ গেল সাতজনের সাংবাদিক রোজিনাকে হেনস্তার ঘটনা তদন্তে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কমিটি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩ বন্ধুকে পাশাপাশি দাফন ভুল বিচারে ৩১ বছর জেলে দুই ভাই, ক্ষতিপূরণ সাড়ে ৭ কোটি ডলার! ‘ডকুমেন্টস সাংবাদিক রোজিনা নয়, সরকারি কর্মকর্তা উপস্থাপন করেছেন’ ফিলিস্তিন সংকট নিরসনে যুক্তরাষ্ট্রের শক্ত ভূমিকা চায় বাংলাদেশ জামিন পেলেন ফিরহাদ হাকিমসহ পশ্চিমবঙ্গের সেই ৪ নেতা ফিলিস্তিন ইস্যুতে নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধী অবস্থান চীনের শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন দেওয়ার পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে

কি অদ্ভুত প্রশাসনের পাল্লায় পড়েছি আমরা আম জনতা?

তবারক হোসাইন : গত দুদিন ধরে প্রচার মাধ্যমে দেখলাম ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের কোন কোন এলাকা লাল, হলুদ বা সবুজ জোনে পড়েছে তা প্রচারিত হলো। আমি দেখলাম আমার এলাকা সেগুন বাগিচা লাল জোনে। আমি একটি পোষ্ট ও দিলাম, আমরা রেড জোনে’ বলে। বন্ধু বান্ধবরা এটা দেখে নানা ধরনের মন্তব্য ও পরামর্শ দিতে থাকলেন। আমরা ও মনে মনে সব ধরনের মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে রাখলাম।
গতকাল অপরাহ্নে একটি প্রজ্ঞাপনের কপি পেলাম। এতে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপন। এতে বিভিন্ন নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। প্রজ্ঞাপনের ৩.১৪ দফায় বলা হলো রেড জোনে যারা পড়েছেন তারা স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশ কঠোর ভাবে মেনে চলতে হবে। এতে কিছু নির্দেশনার কথা উল্লেখ ও করা হয়েছে।
প্রজ্ঞাপনের ৩.১৬ দফায় বলা হলো রেড ও ইয়েলো জোনে বসবাসকারী সরকারী আধা সরকারী ও বেসরকারি কর্মকর্তা বা কর্মচারীরা ছুটিতে থাকবেন।

আশ্চর্যের ব্যাপার কাল সন্ধ্যার দিকে জানানো হলো ‘ ইয়েলো জোনে যারা বাস করেন তাদের জন্য ছুটি নয়। একটি সরকারী প্রজ্ঞাপন জারীর কয়েক ঘন্টার মধ্যে এটির পরিবর্তন এ ধরনের প্রজ্ঞাপন যারা জারী করেন তাদের বিষয়টির দুরত্ব অনুধাবন করার বিষয়টি প্রশ্নবিদ্ধ করে।দেশবাসীকে নিয়ে তারা মনোযোগ দিয়ে ভাবেন তার প্রমাণ এতে মিলেনা।

তারপর ও অধিকতর বিস্ময়ের ব্যাপার দেখলাম রাতে। রাতে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বিভিন্ন টেলিভিশনে বললেন একমাত্র পূর্ব রাজাবাজার ছাড়া নাকি ঢাকার দুটো সিটি কর্পোরেশনের কোনটিতেই জোনিং সম্পন্ন হয়নি। আজ প্রথম আলো এ রকম একটি সংবাদ ও প্রকাশ করেছে। তা হলে দুদিন ধরে যে প্রচারণা চালানো হলো তা কেনো হলো? জনগণ কি তামাশার বস্তু? যারা এসব করলেন তাদের কি অধিকার আছে জনগণের সাথে তামাশা করার?
প্রতিমন্ত্রীর ভাষায় যদি একমাত্র পূর্ব রাজাবাজার রেড জোন হয় তাহলে সে এলাকার জন্য নির্দেশনা দিলেই তো ল্যাটা চুকে যেতো। সেটা না করে এতো বড়ো একটি প্রজ্ঞাপন জারী কেনো? এটা কি নগরবাসীর প্রতি মশকরা নয়? এ মশকরা কেনো? করোনার দুর্যোগ কালীন সময়ে সরকারের সব বিভাগের দায়িত্ব হলো মানুষকে স্বস্তি দেওয়ার জন্য সুচিন্তিত পদক্ষেপ নেওয়া। কিন্তু করোনা কালে, দূ:খের সাথে লক্ষ্য করছি সরকারের বিভিন্ন বিভাগে দায়িত্বে সমাসীন ব্যক্তিদের নিদারুন উদাসীনতা, স্বেচ্চাচারিতা ও দায়িত্ব হীনতা। কবি শামসুর রাহমানের ভাষায় বলতে হয়,’ উদ্ভট উটের পিঠে চলেছে স্বদেশ।’


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com