1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন

ডা. ফারজানাকে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের অভিনন্দন

মৃদুভাষণ রিপোর্ট ::  যুক্তরাজ্যের বর্ষসেরা চিকিৎসক (জিপি অব দ্য ইয়ার) মনোনীত হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফারজানা হুসেইন। যুক্তরাজ্যে প্রতিবছর জেনারেল প্র্যাকটিসের জন্য এই পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। পূর্ব লন্ডনের নিউহ্যামে বসবাসকারী ফারজানা হুসেইন গত ১৮ বছর ধরে স্থানীয় পর্যায়ে এই খেতাব পেয়ে আসছিলেন।
এবার তিনি জাতীয় পর্যায়েও জিপি (জেনারেল প্রাক্টিসনার) বা বর্ষসেরা চিকিৎসক মনোনীত হলেন। পুরস্কারটি প্রদান করেছে যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক সংস্থা দ্য ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস (এনএইচএস)। ডাক্তার ফারজানা জিপি অব দ্য ইয়ার নির্বাচিত হওয়া জালালাবাদ এসোসিয়েশনের পক্ষে সভাপতি ড. এ কে আব্দুল মুবিন অভিনন্দন জানিয়েছেন।

ড. মুবিন আরো বলেন ফারাজানর বাবা রায়নগর সোনারপাড়ার ডা. ফারুক এবং তার নানা ছিলেন মৌলভী আবদুল হামিদ যিনি বহু বছর আসামে এবং পরে পূর্ব পাকিস্তানে ( ১৯৪৭-৫৪) মন্ত্রী ছিলেন। তাঁর নানার বাড়ি সিলেটের পাঠানটুলায়, ‘মন্ত্রী বারী’ নামে পরিচিত।

এনএইচএসএর ৭২ বছর পূর্তি উদযাপন করেছে ব্রিটেন, সে সময়ই ঘোষিত হলো ফারজানার নামটিও।
লন্ডনে পিকাডিলি সার্কাসের সামনে তাকে নিয়ে বিলবোর্ড টাঙানো হয়েছে।
করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর একটি যুক্তরাজ্য। এখানে এ পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ৮৪ হাজার ২৭৬ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪৪ হাজার ১৩১ জনের। দেশটিতে করোনার এই মহামারির সময়ে সামনের সারিতে থেকে স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে এই স্বীকৃতি পেলেন ফারজানা হোসেইন। দেশটির ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস- এনএইচএস যে ১২ জন প্রথম সারির করোনাযোদ্ধা চিকিৎসককে নিয়ে বিলবোর্ড করেছে, এর মধ্যে তিনি একজন।
ফারজানার বাবাও বৃটেনের একজন ডাক্তার ছিলেন। এবং তার স্বামী ডাক্তার সাফি আহমেদও বর্তমানে যুক্তরাজ্যের প্রভাবশালী একজন ডাক্তার। তিনি বিশ্বের অন্যতম একজন ভার্চুয়েল সার্জন এবং ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ। শাফি কমিউনিটির অত্যন্ত সুপরিচিত ব্যাক্তি প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মরহুম মিম্বর আলীর ছেলে।
ডাক্তার ফারজানার এই কৃতিত্বে আমরা গর্বিত। তাকে প্রাণঢালা অভিনন্দন। তার এই সাফল্যে যুক্তরাজ্যের বাঙালী কমিউনিটি আরও এক ধাপ এগিয়ে গেলো।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com