1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:৪১ পূর্বাহ্ন

দূতাবাসের গোপন নথি পুড়িয়ে ফেলছে চীন

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের হিউস্টনে নিজেদের কনস্যুলেট বা দূতাবাস বন্ধের আগে এর গোপন সব নথি পুড়িয়ে ফেলছে চীন।

বন্ধের নির্দেশ প্রকাশে আসার আগেই দূতাবাসের দেয়ালঘেরা আঙিনায় আগুন জালিয়ে দেয়। বাইরে থেকে এর ধোঁয়াও দেখা গিয়েছিল। আগুন জ্বলছে- এমন বেশ কিছু ছবিও গণমাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে।

হিউস্টনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রেও দাবি, ওই চীনা দূতাবাসে বেশকিছু নথি পোড়ানো হয়েছে। তবে ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে এখনও এ সংক্রান্ত সরকারি বিবৃতি আসেনি।

মঙ্গলবার রাতেই হিউস্টনের ওই দূতাবাসে আগুন লাগার খবর আসে। হিউস্টন পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস।

কিন্তু মার্কিন পুলিশকে চীনা দূতাবাসের ভেতরে ঢুকতে দেয়া হয়নি। স্থানীয় সূত্রগুলো বলছে, দূতাবাসটি চীনা গুপ্তচরদের আড্ডাখানা ছিল। হিউস্টন দূতাবাস নিয়ে হইচইয়ের মধ্যে এফবিআই দাবি করেছে, সানফ্রান্সিসকোর চীনা দূতাবাসে পলাতক এক চীনা বিজ্ঞানী লুকিয়ে রয়েছে। ভুয়া তথ্য দিয়ে ভিসা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অভিযোগে মাকিন আইনপ্রণেতারা তাকে খুঁজছে। খবর এনবিসি ও সিএনএনের।

দক্ষিণ চীন সাগর ও করোনা নিয়ে বেইজিং-ওয়াশিংটন টানাপোড়েন চলছেই। এমন সময়েই ধাক্কা খেল দুই দেশের সম্পর্ক। কোনো সতর্কতা ও ব্যাখ্যা না দিয়েই হঠাৎই টেক্সাসের হিউস্টন শহরে অবস্থিত চীনা দূতাবাসটি বন্ধের নির্দেশ দেয় ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। মার্কিন সরকারের অভিযোগ, আমেরিকার ’সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন’ করেছে চীন।

মাকিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য দূতাবাস থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপকভাবে গুপ্তচরবৃত্তি করা হচ্ছে। এরপর দূতাবাস বন্ধ করতে মাত্র ৭২ ঘণ্টা সময় বেঁধে দেয়া হয়। এই পদক্ষেপকে অবৈধ আখ্যা দিয়ে তীব্র নিন্দা জানায় বেইজিং।

সেই সঙ্গে পাল্টা ‘বদলা’ নেয়ার হুশিয়ারিও দেয়। তবে আগামী শুক্রবার দূতাবাস বন্ধ হবে বলেও জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। ট্রাম্প প্রশাসনের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এনবিসি জানায়, যুক্তরাষ্ট্রে মূল্যবান মেডিকেল গবেষণা তথ্য হাতিয়ে নিতে দীর্ঘদিন ধরে হিউস্টন দূতাবাসটি ব্যবহার করছে চীন সরকার। তেল ও গ্যাস শিল্প খাতগুলোতেও অনুপ্রবেশের চেষ্টাতেও তারা জড়িত। কর্মকর্তারা আরও বলেছেন, দূতাবাসটি দুর্গের মতো। যুক্তরাষ্ট্র সরকার যাতে নজরদারি করতে না পারে তা নিশ্চিত করা হয়েছে। বিভিন্ন ধরনের গুপ্তচরবৃত্তি চালাতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তিও বসানো হয়েছে এখানে। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, গুপ্তচরবৃত্তির তথ্য লুকাতেই গোপন সব তথ্য পুড়িয়ে ফেলা হচ্ছে।

বিবিসি জানিয়েছে, হিউস্টনে চীনা কনস্যুলেট ভবনের আঙিনায় কিছু নথি পুড়িয়ে ফেলার একটি ভিডিও প্রকাশের পর মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর থেকে দূতাবাস বন্ধ করার নির্দেশনা দেয়া হয়।

আমেরিকায় চীনের মোট ৬টি দূতাবাস রয়েছে। তার মধ্যে শুধু হিউস্টনের দূতাবাস বন্ধের নির্দেশ দেয়া হল। হিউস্টন দূতাবাস বন্ধের উত্তেজনার মধ্যেই মঙ্গলবার সানফ্রান্সিসকোর চীনা দূতাবাসে চীনের পলাতক এক বিজ্ঞানী লুকিয়ে রয়েছে বলে অভিযোগ করে এফবিআই।

মাকিন আইনজীবীদের অভিযোগ, ট্যাং জুয়ান নামে জীববিজ্ঞানের একজন গবেষক ভিসা নেয়ার সময় চীনা সেনাবাহিনীর সঙ্গে নিজের সংশ্লিষ্টতার ব্যাপারে মিথ্যা তথ্য দিয়েছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের পর থেকেই গ্রেফতার এড়াতে চীনা দূতাবাসের আশ্রয়ে রয়েছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্র হিউস্টনে চীনা কনস্যুলেট বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ দেয়ার পর চীন পাল্টা ব্যবস্থা নেয়ার কড়া হুমকি দিয়েছে।

চীনা কমিউনিস্ট পার্টির মুখপাত্র হিসেবে পরিচিত গ্লোবাল টাইমস বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য পাল্টা ব্যবস্থা নিয়ে তাদের পরিচালিত একটি অনলাইন ভোটিংয়ে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে হাজার হাজার মানুষ মতামত দিয়েছে। তাদের ৬৫ শতাংশই বলেছে, হংকং ও ম্যাকাওতে যুক্তরাষ্ট্রের কনস্যুলেট বন্ধ করে দেয়া উচিত।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com