1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

সোমবার, ১০ মে ২০২১, ১০:৫৫ অপরাহ্ন

ইতিহাস তৈরি করলেন হ্যারিস, পেলোসি

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: বুধবার মার্কিন ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কংগ্রেসে প্রেসিডেন্টের ভাষণের সময় তার পেছনে ছিলেন দুই জন নারী—একজন কৃষ্ণাঙ্গ ও একজন ভারতীয় আমেরিকান। বুধবার রাতে কংগ্রেসের উভয় কক্ষের উদ্দেশে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেওয়া জো বাইডেনের প্রথম ভাষণের সময় তার পেছনে দাঁড়িয়ে এই ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমালা হ্যারিস ও প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। হ্যারিস কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ও পেলোসি নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার হিসেবে বাইডেনের সঙ্গে মঞ্চে যোগ দেন। এর আগে কখনোই মার্কিন কংগ্রেসে ভাষণ দেওয়ার সময় কোনো প্রেসিডেন্টের পেছনে একইসঙ্গে দুই জন নারীকে দেখা যায়নি। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি।

খবরে বলা হয়, হ্যারিস ও পেলোসিকে সঙ্গে নিয়ে ঐতিহাসিক এই মূহুর্তের কথা ভাষণের প্রথমেই উল্লেখ করেন বাইডেন। মঞ্চে উঠেই তার পেছনে থাকা দুই নারীকে ‘ম্যাডাম স্পিকার’ ও ‘ম্যাডাম ভাইস প্রেসিডেন্ট’ বলে অভিবাদন জানান।

এরপর ঘোষণা দেন, এর আগে কোনো প্রেসিডেন্ট এই শব্দগুলো বলেননি। এখন বলার সময় এসেছে।
বাইডেনের ভাষণ শেষে এ বিষয়ে এমএসএনবিসিকে দেওয়া এক বক্তব্যে পেলোসি বলেন, এটা বেশ রোমাঞ্চকর। আর ইতিহাস তৈরি করতে পারাটাও চমৎকার বিষয়।
এমনটা হওয়ারই ছিল।
উল্লেখ্য, কংগ্রেসের নিম্নকক্ষে প্রেসিডেন্টের ভাষণের সময় তাদের পেছনে দাঁড়ানোর অনুভূতি অবশ্য পেলোসির জন্য নতুন নয়। স্পিকার হিসেবে, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ, বারাক ওবামা ও ডনাল্ড ট্রাম্পের ভাষণের সময়ও তাদের সঙ্গে মঞ্চে ছিলেন তিনি। তবে দুই নারী থাকার কোনো নজির আগে কখনও ছিল না! থাকবে কী করে, এর আগে কোনো নারী তো ভাইস প্রেসিডেন্ট হনওনি।
দুই নারীর সঙ্গে মঞ্চ ভাগের এই ইতিহাস তৈরির পেছনে বড় ভূমিকা রয়েছে বাইডেনের। নিজের ভাইস-প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথমবারের মতো একজন নারীকে নির্বাচিত করে ইতিহাস তৈরি করেছিলেন তিনি। ৫৬ বছর বয়সী হ্যারিস পরবর্তীতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম নারী, কৃষ্ণাঙ্গ ও ভারতীয় আমেরিকান ভাইস-প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন।
অন্যদিকে, রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট বুশের আমলে মার্কিন ইতিহাসের প্রথম নারী হাউজ স্পিকার হয়ে ইতিহাস তৈরি করেছিলেন পেলোসি। ওই সময় তার সফলতাকে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন বুশ। কংগ্রেসের উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে, ‘ম্যাডাম স্পিকার’ শব্দ দুটি উচ্চারণকারী প্রথম প্রেসিডেন্ট ছিলেন তিনি।
৮১ বছর বয়সী পেলোসি পরবর্তীতে ট্রাম্পের আমলে ফের হাউজ স্পিকার নির্বাচিত হন। কংগ্রেসে ট্রাম্পের দেওয়া শেষ দুটি ভাষণের সময় তার পেছনে বসেন। এমনকি এক ভাষণের সময় ট্রাম্পের বক্তব্যের প্রতিলিপি ভাষণ চলাকালে ছিড়ে ফেলেন।
বুধবার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে মঞ্চ ভাগ করে ইতিহাস সৃষ্টির পাশাপাশি আরেকটি ঐতিহাসিক মুহূর্তে দেখা গেছে পেলোসি ও হ্যারিসকে। মঞ্চে উঠে কুশল বিনিময়ের সময় হাত মেলানোর বদলে কনুই মেলাতে দেখা গেছে তাকে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে চালু হয়েছে এই কনুই মেলানো।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com