1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

বুধবার, ১৩ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৫ অপরাহ্ন

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় শিক্ষক কারাগারে

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: ফেনীর দাগনভূঞায় এক স্কুলছাত্রীকে (১১) ধর্ষণের মামলায় গ্রেপ্তার রমজান আলী শাহীনকে (৩৩) কারাগারে প্রেরণ করেছে আদালত। রোববার সন্ধ্যায় ফেনী জজ আদালতে (ভার্চুয়াল) মাধ্যমে তাকে জেলা কারগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইমতিয়াজ আহমেদ।

গ্রেপ্তার রমজান আলী শাহীন জেলার দাগনভূঞা উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের উত্তর বারাহি গোবিন্দ গ্রামের ওয়াহেদ মিঝি বাড়ীর হারিছ আহাম্মদের ছেলে। তিনি উত্তর বারাহি গোবিন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক। ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থীটি উত্তর বারাহি গোবিন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ও সম্পর্কে ওই শিক্ষকের ভাতিজি।

পুলিশ জানায়, ২০২০ সালের ২৩শে আগস্ট দুপুরে উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের উত্তর বারাহি গোবিন্দ গ্রামের ওয়াহেদ মিঝি বাড়ীর একটি ঘরের বাসিন্দা ১১ বছর বয়সী স্কুল ছাত্রীটিকে (ভাতিজি) ফুসলিয়ে বাড়ির পার্শ্ববর্তী বাগানে নিয়ে যায় স্কুল শিক্ষক (চাচা) রমজান আলী শাহীন। এসময় ছাত্রীর মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে রমজান আলী শাহীন। পরে ছাত্রীটিকে ঘটনাটি কাউকে না জানাতে চাপ দেয় শিক্ষক শাহীন। এক পর্যায়ে ছাত্রীটি তার বান্ধবীকে জানালেও বিষয়টি পরিবারের অগোচরে থেকে যায়।
এদিকে গত ২২ মে শনিবার রাতে স্কুল ছাত্রীটি পারিবারিক কারণে বাড়ির প্রতিবেশী চাচা (শিক্ষক) শাহীনের বাড়িতে গেলে ফের জোর পূর্বক যৌনপীড়নের শিকার হয়। পরে স্কুল ছাত্রীটি তার ঘরে ফিরে পরিবারের স্বজনদের বিষয়টি অবগত করে।

পরদিন ২৩ মে রোববার স্কুল ছাত্রীর মা বাদী হয়ে শিক্ষক রমজান আলী শাহীনকে আসামী করে দাগনভূঁঞা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করেন।

দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, পুলিশ রোববার দুপুরে অভিযান চালিয়ে আসামি রমজান আলী শাহীনকে গ্রেপ্তার করেছে। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে ধর্ষণের শিকার কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা ফেনী জেনারেল হাসপাতালে হয়েছে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com