1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৪১ পূর্বাহ্ন

যেভাবে ভেঙ্গে পড়ে ইটালির মহাসড়ক সেতুটি

ইটালির জেনোয়া শহরের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কের ওপর একটি সেতু ধসে পড়ার পর অন্তত ৩০ জন নিহত হয়েছে। সেতুটি ধসে পড়ার পর এটির ওপর থাকা কোন কোন গাড়ি প্রায় তিনশো ফুট নীচে গিয়ে পড়ে খবর বিবিসি বাংলার।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় যেসব টাওয়ারের ওপর এই সেতুটি ছিল, ঝড়ো আবহাওয়ায় তার একটি ভেঙ্গে পড়ছে।

ইটালির পরিবহন মন্ত্রী এই ঘটনাকে এক ‘বিরাট ট্রাজেডি’ বলে বর্ণনা করেছেন।

সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে সেখানে প্রচন্ড ঝড়-বৃষ্টি শুরু হয়েছিল।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী পিয়েট্রো এম আলআসা জানান, “তীব্র বজ্রপাত হচ্ছিল, তখন আমরা ব্রিজটি ধসে যেতে দেখি।”

সেতুটির ওপর তখন গাড়ির দীর্ঘ লাইন ছিল।

অনেক ট্রাক এবং কার সেতুটির ধ্বংসস্তুপের নীচে চাপা পড়ে। সেতুর নিকটবর্তী অনেক ভবন ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

শত শত উদ্ধারকর্মী এখন ঘটনাস্থলে পৌঁছে কাজ শুরু করেছে।

এই সেতুটির নাম মোরান্ডি ব্রিজ। এটি তৈরি হয়েছিল ১৯৬০ এর দশকে। ইটালির এ-টেন মহাসড়কের ওপর এটির অবস্থান। ইটালিয়ান রিভিয়েরা এবং ফ্রান্সের দক্ষিণ উপকূলকে যুক্ত করেছে এই মহাসড়ক।

ব্রিজটির যে অংশটি ধসে পড়েছে, সেটি ছিল পোলসেভেরা নদীর উপর।

যখন সেতুটি ধসে পড়ে, তখন এটির ভিত্তি মজবুত করার কাজ চলছিল। সেতুর কাঠামো নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছিল।

কেন সেতুটি ধসে পড়লো তা নিয়ে নানা জল্পনা চলছে।

একজন স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনীয়ার ইয়ান ফার্থ বিবিসিকে জানান, মোরান্ডি সেতুর ডিজাইন ছিল খুব অভিনব। কেন এটি ধসে পড়লো তা বলা কঠিন। তবে যেহেতু রি-ইনফোর্সড কংক্রীটের ব্রিজটি ৫০ বছরের বেশি পুরনো তাই এমন হতে পারে যে এর ভেতরের কিছু জিনিস ক্ষয়ে গিয়েছিল।”

দুর্ঘটনাস্থল থেকে একজন ইটালিয়ান সাংবাদিক ম্যাটিও পুচারেল্লি জানান, তিনি সেখানে সেতুর নীচে প্রায় বিশ-তিরিশটি গাড়ি দেখতে পাচ্ছেন। পুলিশ, অ্যাম্বুলেন্স, হেলিকপ্টার দিয়ে উদ্ধারকাজ চালানো হচ্ছে। উদ্ধারকর্মীরা নদীতেও অনেক মানুষকে খুঁজে পাচ্ছে।

ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্র এই দুর্ঘটনায় ইটালিকে শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন।

ইটালির উপ-প্রধানমন্ত্রী ম্যাটিও স্যালভিনি বলেছেন,এই সেতু দুর্ঘটনা প্রমাণ করে যে ইটালিকে তার ব্যয় সংকোচনের চেয়ে বরং অবকাঠাামো খাতে ব্যয় বৃদ্ধিকেই বেশি গুরুত্ব দিতে হবে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com