1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:২৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
সব মোবাইলের জন্য একই চার্জার বাধ্যতামূলক করার প্রস্তাব এসএসসি পরীক্ষা নভেম্বরে, এইচএসসি ডিসেম্বরে: শিক্ষামন্ত্রী সিলেটে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে স্কলার্সহোমের ছাত্র নিহত মহারাষ্ট্রে নারকীয় ঘটনা, ২৯ জন মিলে তরুণীকে গণধর্ষণ দাঁড়িয়ে থাকা পিকআপে ট্রাকের ধাক্কা, নিহত ৩ আফগানিস্তানে ১৫০ সংবাদপত্র বন্ধ ওসির কক্ষে হত্যা মামলার আসামিকে লাইভে জিজ্ঞাসাবাদ, তোলপাড় নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সাইডলাইনে সেন্টার ফর এনআরবি’র হাইব্রিড কনফারেন্স অনুষ্ঠিত আট হাজার কোটি টাকা দামের বিমানে মোদির মার্কিন সফর, বিতর্কের ঢেউ ভারতজুড়ে ‘ইভানা আমাকে জানায় তার স্বামী পরকীয়ায় লিপ্ত’

সামিটের আজিজ খান সিঙ্গাপুরের শীর্ষ ধনী

মৃদুভাষন ডেস্ক :: অর্থ-বাণিজ্যে বিষয়ক সাময়িকী ফোর্বস ম্যাগাজিনের করা সিঙ্গাপুরের শীর্ষ ৫০ ধনীর তালিকায় ৩৪তম স্থানে রয়েছে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আজিজ খান ও তাঁর পরিবারের নাম।

ফোর্বসের করা নতুন এই তালিকায় জুলাই পর্যন্ত আজিজ খান ও তাঁর পরিবারের সম্পদের পরিমাণ দেখানো হয়েছে ৯১ কোটি ডলার। এ বছর এই পরিমাণ সম্পদ নিয়ে আজিজ খানের নাম রয়েছে তালিকার ৩৪ নম্বরে।

৬৩ বছর বয়সী আজিজ খান প্রায় এক যুগ ধরে সিঙ্গাপুরে স্থায়ীভাবে বসবাস করছে। বাংলাদেশে বিদ্যুৎ, বন্দর, ফাইবার অপটিকস, কমিউনিকেশনস, হসপিটালিটি, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক, রিয়েল এস্টেটসহ অন্যান্য খাতে ব্যবসা রয়েছে সামিট গ্রুপের।

সামিট গ্রুপের প্রতিষ্ঠান সামিট পাওয়ার ইন্টারন্যাশনাল সম্প্রতি সিঙ্গাপুর স্টক এক্সচেঞ্জে (এসজিএক্স) তালিকাভুক্ত হওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। এশিয়ায় বিভিন্ন দেশে বিনিয়োগের জন্য এসজিএক্স থেকে অর্থ সংগ্রহ করতে চায় সামিট গ্রুপ।

দুই বছর আগে ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস আইসিআইজের প্রকাশিত অফশোর লিকস ডেটাবেইজে আজিজ খান ও তার পরিবারের সদস্যদের নাম আসে। তবে সামিট চেয়ারম্যান সে সময় কোনো ধরনের অনিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন।

প্রথমে ট্রেডিং কোম্পানি হিসেবে যাত্রা শুরু করলেও বেসরকারি খাতে বিদ্যুৎ উৎপাদনের ব্যবসা এসে দ্রুত উন্নতি হতে থাকে সামিট গ্রুপের। ১৯৯৮ সালে সামিটের প্রথম বিদ্যুৎকেন্দ্রটি উৎপাদনে যায়। বর্তমানে সামিটের ১৭টি কেন্দ্র দেশের মোট বিদ্যুতের চাহিদার ৯ শতাংশের যোগান দিচ্ছে বলে তাদের ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়।

সামিট পাওয়ার গতবছর যুক্তরাষ্ট্রের জেনারেল ইলেকট্রিক (জিই) এবং জাপানের মিৎসুবিশি করপোরেশনের সঙ্গে মিলে বাংলাদেশে ৩০০ কোটি ডলার বিনিয়োগের ঘোষণা দেয়। এর আওতায় দুই হাজার ৪০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার চারটি বিদ্যুৎকেন্দ্র, দুটি এলএনজি টার্মিনাল, একটি তেলের টার্মিনাল এবং একটি এইচএফওভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে সামিট গ্রুপের।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com