1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:৩২ অপরাহ্ন

সাভারে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় কলেজছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

নিহত কলেজছাত্র মারুফ।

মৃদুতভাষণ ডেস্ক ::: সাভারে কলেজছাত্রীকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় মারুফ খান (২০) নামে এক কলেজছাত্রকে খুন করেছে বখাটেরা। নিহত মারুফ চলতি বছর ঢাকার মিরপুর কমার্স কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেছেন।

তিনি সাভার পৌর এলাকার আতাউর রহমান খান আলমগীরের ছেলে। দুই ভাই এক বোনের সংসারে তিনি ছিলেন সবার ছোট।

ঈদের দিন বুধবার ময়না তদন্ত শেষে জানাজার পর রাতে আশুলিয়া থানার শিমুলিয়া মুনসুরবাগ পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়েছে।

হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে আসাদুল নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। নিহতের বড় ভাই লুৎফর রহমান খান মানিক বাদি হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজনের নামে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

গত ২১ আগস্ট মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাভার পৌর এলাকার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের গেন্ডা বাসস্ট্যান্ডের পাশে প্রকাশ্য হত্যকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। হাসপাতালে নেয়ার পথে মারুফের মৃত্যু হয়।

সাভার থানার পরিদর্শক বুলবুল আহমেদ স্থানীয়দের বরাতে বলেন, রাজাবাড়ি এলাকায় ঢাকা কমার্স কলেজের শিক্ষার্থীকে মঞ্জু ও শ্যামলসহ কয়েকজন উত্যক্ত করলে মারুফ এর প্রতিবাদ করেন। পরে গেন্ডা এলাকায় মারুফকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে পালিয়ে যায় বখাটেরা।

তিনি বলেন, স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। পরে রাজধানীর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নেয়ার পথে তার মৃত্যু ঘটে।

সাভারের উলাইলে কোরবানির পশুর হাট থেকে বের হয়ে বখাটেরা এ ঘটনা ঘটায় বলে মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তারা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন।

পুলিশ জানায়, বুধবার সকালে নিহতের বড়ভাই বাদি হয়ে তালবাগ ও টিয়াবাড়ি মহল্লার মঞ্জু, শ্যামল, প্লাবন, মমিন, শামীম, রইছ, আসাদুল, মুক্তাদির ও ইমরানের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন। এসআই অপূর্ব মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। পুলিশ ছাড়াও গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও র‌্যাব মামলার ছায়া তদন্ত করছে।

হত্যাকান্ডের পুরো ঘটানটি সাভার মডেল থানা পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজে দেখেছে বলে থানা সুত্রে জানা গেছে।

মামলার বাদি মানিক দাবি করেন, প্রধান আসামিসহ অন্য আসামিরা হেলমেট পরে মোটরসাইকেল নিয়ে দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছে। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীদের তারা নানাভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে।

তিনি জানান, ২০১৬ সালে সাভারের ব্যাংক কলোনী মহল্লায় এক স্কুল ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় এই মঞ্জু গ্রুপ তিন শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় তাদের কিবরুদ্ধে থানায় মামলা হয়। এরপরও তারা স্কুল-কলেজগামী ছাত্রীদের ইভটিজিং করেই আসছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com