1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:২৩ অপরাহ্ন

স্ত্রীকে হত্যার পর লাশ গাছে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: রাজশাহীর বাগমারায় স্বামীর পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর তাঁর লাশ আমগাছে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল সোমবার রাতে উপজেলার পূর্ব দৌলতপুর গ্রাম থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ আজ মঙ্গলবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহত নারীর নাম ফরিদা বেগম (৩৭)। তাঁর স্বামীর নাম শহিদুল ইসলাম (৪২)। ঘটনার পর থেকে শহিদুল পলাতক রয়েছেন।

ফরিদা বেগমের ভাই শুকুর আলীর ভাষ্য, তাঁদের বাড়ি উপজেলার মীরপুর গ্রামে। প্রায় দুই দশক আগে পার্শ্ববর্তী পূর্ব দৌলতপুর গ্রামের শহিদুলের সঙ্গে তাঁর বোন ফরিদার বিয়ে হয়। বিয়ের পর বোনের সংসারে কোনো ঝামেলা ছিল না। তবে সম্প্রতি শহিদুলের পরকীয়ার জেরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ দেখা দেয়। পরকীয়ার বাধা দেন ফরিদা। এতে শহিদুল ক্ষুদ্ধ হন। গত রাতে ফরিদাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর তাঁর লাশ প্রতিবেশীর পুকুরপাড়ের একটি আমগাছে ঝুলিয়ে রাখেন শহিদুল।

শহিদুল পলাতক থাকায় তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের বিষয়ে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তাঁর এক স্বজন বলেন, তাঁরা ঘটনার বিষয়ে কিছু জানেন না।

বাগমারা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নিয়ামুল হক বলেন, নিহত নারীর শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন দেখা যায়নি। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা, তা নিশ্চিত হতে লাশের ময়নাতদন্ত করা হবে।

বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহম্মেদ বলেন, এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর আলামত পাওয়া গেলে হত্যা মামলা হবে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com