1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৪৭ অপরাহ্ন

হতাশ নই, বিশ্বাস করি পৃথিবীতে শান্তি আসবে : জাফর ইকবাল

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: জনপ্রিয় লেখক অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল বলেছেন, ‘আমি হতাশ নই, আমি বিশ্বাস করি সারা পৃথিবীতে শান্তি আসবে, আমাদের দেশেও শান্তি আসবে।’

তিনি বলেন, যখন আমি গণিত অলিম্পিয়াডে যাই কাউকে গণিত সম্পর্কে কিছু বলি না, কারণ তারা গণিত সম্পর্কে জানে। যখন বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের অনুষ্ঠানে যাই আমি তাদের দেশ নিয়ে, দেশের মানুষ নিয়ে বলি, কিন্তু বই পড়া নিয়ে কিছু বলি না, কারণ তারা বইকে ভালোবাসে বলেই এখানে আসা। ঠিক তেমনি আজকের এই অনুষ্ঠানে আমি সম্প্রীতি নিয়ে কিছু বলবো না। কারণ এখানে যারা এসেছেন তারা সম্প্রীতিকে বুকে ধারণ করেন বলেই এসেছেন। এখানে আমরা সমস্যা নিয়ে কথা বলতে পারি। আমাদের দেশে খুব এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু কিছু সমস্যা আছে।

এসময় তিনি রামুর প্রসঙ্গ তোলেন, চাকরি পাওয়ায় সমতার কথা বলেন। আমাদের জিডিপি বাড়লো, স্যাটেলাইটের সংখ্যা বাড়লো কিন্তু আমাদের দেশের সংখ্যায় যারা কম তাদের যদি জিজ্ঞেস করেন সে কেমন আছে, তখন বোঝা যাবে আমরা কেমন উন্নতি করেছি।

সোমবার (১৬ জুলাই) নগরীর হাফিজ কমেপ্লেক্সে সম্প্রীতি বাংলাদেশ আয়োজিত ‘গাহি সাম্যের গান’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় অধ্যাপক জাফর ইকবাল এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বর্তমান অবস্থার বর্ণনা দিয়ে এটা বৈশ্বিক সমস্যা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ইউরোপ বা আমেরিকা আমাদের চেয়ে অনেক উন্নত কিন্তু সেখানেও সমস্যা আছে। আমাদেরও সমস্যা আছে, আর তা মোকাবেলা করতেই সম্প্রীতি। তিনি বড়ভাই হুমায়ুন আহমেদের উদ্বৃতি দিয়ে বলেন, কচ্ছপ বাঁচে ৩০০ বছর আর মানুষ মাত্র ৭০ বছরেই মারা যায়, কিন্তু এই ৭০ বছর আমি আনন্দ করে বাঁচবো, এমনভাবে বাঁচবো যেনো ৩০০ বছরের মতো হয়। কিন্তু কিভাবে আনন্দ পাওয়া যায়? অন্যের জন্য কিছু করলে আনন্দ পাওয়া যায়। আমাদের অন্যের জন্য করতে হবে। আমি যদি মুসলমান হই আমাকে নিশ্চিত করতে হবে, আমার অন্য ধর্মের বন্ধুটি তার ধর্ম ঠিকমতো পালন করতে পারছে কিনা। আমিও তাদের সাহায্য করবো। এটাই সম্প্রীতি।

তিনি আরো বলেন, ‘আমি এক ধর্মের মানুষ, আমি অপর ধর্মের মানুষকে সাহায্য করবো, এতেই আনন্দ। যারা ধর্ম নিয়ে ব্যবসা করে তারা রাজনীতির নামে, ধর্মের নামে আমাদের মাঝে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে। আমরা কখনো আমাদের সম্প্রীতি নষ্ট করবো না। আমাদের ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে। একটি সুন্দর সম্প্রীতির বাংলাদেশ গড়তে হবে।’

নাট্য ব্যক্তিত্ব পীযুষ বন্দোপাধ্যায়ের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাবেক রাষ্ট্রদূত ড. একে আবুল মোমেন, ডা. নুজহাত চৌধুরী, সিলেট ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা হাবিব আহমদ শিহাব, রামকৃষ্ণ মিশনের সাধু স্বামী পূর্ণপদানন্দ মহারাজ প্রমুখ।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com