1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন

কনসার্ট পুড়বে দর্শক খরায়

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: টেলিভিশন অনুষ্ঠান কিংবা উন্মুক্ত ময়দানে আর কখনোই দেখা যাবে না আইয়ুব বাচ্চুকে। এক সময় যাঁর গিটার কেঁদে উঠত অবলীলায়, সেই তিনিই আজ কোটি ভক্তকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে। তাঁর মৃত্যুতে দেশের সঙ্গিতাঙ্গনে নেমে এসেছে শুন্যতা। যে শুন্যতা কখনো পূরণ হবার নয়। অনেক শিল্পীর মতে, এবির মৃত্যু দেশের সঙ্গিতাঙ্গনে এক অপূরণীয় ক্ষতি। বিশেষ করে কনসার্টে আর দেখা মিলবে না উপচে পড়া দর্শক।

বাংলাদেশে এখনো কনসার্ট মানেই হাতেগোনা কয়েকজন শিল্পী। তাঁর মধ্যে অন্যতম ছিলেন আইয়ুব বাচ্চু। অসংখ্য ব্যান্ড থাকলেও কনসার্টে তাঁর আবেদন ছিল অবিশ্বাস্য। দেশের কোনো উৎসবই এবির কনসার্ট ছাড়া পূর্ণতা পেত না। তাঁর কনসার্ট মানেই উপচে পড়া দর্শক, বড় বড় পৃষ্ঠপোষক। তাঁকে এক নজর দেখতে, তাঁর গান সামনে থেকে শুনতে দূর দুরান্ত থেকে ছুটে আসতো দর্শক। কনসার্ট আয়োজকদের মধ্যেও চলত এবিকে পাওয়ার তীব্র প্রতিযোগিতা।

এবির মতো এমন একজন শিল্পীকে হারিয়ে দর্শক যেমন বঞ্চিত হবেন কনসার্টের বিনোদন থেকে, তেমনি আয়োজক প্রতিষ্ঠান এবং পৃষ্ঠপোষকতাকারী প্রতিষ্ঠানগুলোও পুড়বে বাণিজ্য খরায়। আয়োজক প্রতিষ্ঠান ক্রেইন্সের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা কাজী ফায়সাল আহমেদ জানান, ‘লাইভ কনসার্টে পারফর্ম করার মতো ব্যান্ড বাংলাদেশে খুব কমই আছে। বাচ্চু ভাই ছিলেন তাঁদের মধ্যে একজন। সব সময় পৃষ্ঠপোষকরা বাচ্চু ভাইকে ডিমান্ড করতেন। তাঁর মৃত্যু আমাদের মতো অনেক প্রতিষ্ঠানের কপালেই চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে।’

জীবদ্দশায় এবি ছিলেন সংগীতের ফেরিওয়ালা। দেশ বিদেশের বহু জায়গায় গিয়েছেন সংগীত নিয়ে। শহর ছাড়িয়ে প্রত্যন্ত গ্রামেও তিনি ছিলেন তুমুল জনপ্রিয়। মফস্বলের বহু জাগায় ঘুরে ঘুরে তিনি কনসার্ট করেছেন। মৃত্যুর দু’দিন আগেও সরকারের উন্নয়ন কনসার্টে রংপুরে গিয়ে দর্শকদের মুগ্ধ করেছেন। যেখান থেকেই কনসার্টে ডাকা হয়েছে, দল নিয়ে ছুটে গেছেন খোলা মনে। আর পেয়েছেন কোটি মানুষের ভালোবাসা।

উল্লেখ্য, গত ১৮ অক্টোবর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন সংগীত কিংবদন্তি আইয়ুব বাচ্চু।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com